Fiverr Gig Rank | ফাইভার গিগ র‍্যাংক করার কিছু উপায়

 


শিরোনাম দেখে, অনেকেই বুঝতে পারে যে আমি আজকে কী নিয়ে কথা বলতে যাচ্ছি, হ্যাঁ! আজ আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে আপনি আপনার Fiverr Gig Rank করতে পারেন এবং আপনার দ্রুত অর্ডার পেতে পারেন। আপনি যদি এই কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করেন, তাহলে আপনি খুব দ্রুত Fiverr Gig Rank করতে সক্ষম হবেন।


আমি আজ আপনাদের সাথে কয়েকটি পয়েন্ট শেয়ার করব যা আপনাকে Fiverr Gig Rank পেতে এবং ফার্স্ট অর্ডার পেতে সাহায্য করবে।


1. রাইট কীওয়ার্ড for Fiverr Gig Rank


লো কিওয়ার্ড সিলেক্ট করুন (অনেকেই হাই কিওয়ার্ড সিলেক্ট করার ভুল করেন এবং Fiverr Gig Rank করতে চান।  ফলস্বরূপ, তারা সাফল্য পায় না। তাই আপনার গিগ র‍্যাংক করার জন্য লো কিওয়ার্ড সিলেকশন খুবই গুরুত্বপূর্ণ


2. অনলাইন সক্রিয় for Fiverr Gig Rank


অনলাইনে 24/7 সক্রিয় থাকা। ধরুন আপনার একটি দোকান আছে, ক্রেতা আপনার দোকানে তখনই আসবে যখন আপনি দোকান খোলা রাখবেন। আপনি যত বেশি দোকান খোলা রাখবেন, গ্রাহক আসার সম্ভাবনা তত বেশি। ঠিক যেমন আপনার ফাইভার আইডি একটি দোকান। আপনি যত বেশি অনলাইনে থাকবেন, আপনার চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা তত বেশি। এটি আপনার Gig Rank করবে, ইম্প্রেশন বাড়বে, ক্লিক বাড়বে।


3. সুন্দর টাইটেল নির্বাচন করুন for Fiverr Gig Rank :


টাইটেল এমন একটি জিনিস যা আপনাকে গিগ র‍্যাংক করতে সাহায্য করবে। একটি সংক্ষিপ্ত কিন্তু আকর্ষণীয় শিরোনাম Fiverr Gig Rank এর জন্য খুবই কার্যকরী । সুতরাং আপনি যে সার্ভিসটি দিচ্ছেন তার জন্য একটি ভাল শিরোনাম সন্ধান করুন। মনে রাখবেন, যে আপনি যে কীওয়ার্ডটি নির্বাচন করেছেন তা এই শিরোনামে খুব সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে।


4. গিগ ইমেজ for Fiverr Gig Rank


গিগ  ইমেজ হল আপনার Fiverr Gig Rank করার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ। একটি গিগ ইমেজ দিয়ে, আপনি আপনার গিগকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেন এবং এটি আপনার ক্লিক এবং আপনার গিগের র‍্যাংক বৃদ্ধি করবে। খুব কম বিষয়বস্তু দিয়ে একটি গিগ ইমেজ তৈরি করুন এবং আপনি সেখানে আপনার কিছু পরিষেবার ব্যবস্থা করতে পারেন। মনে রাখবেন যে গিগ ইমেজটি আপনার কীওয়ার্ড এবং শিরোনামের হওয়া উচিত। এবং আপনার শিরোনাম সহ গিগ ইমেজ রি’নেইম করুন এবং তারপর আপলোড করুন। এটি আপনার Fiverr Gig Rank করতে কিছুটা পুশ দেবে।


5. গিগ ডিস্ক্রিপশন for Fiverr Gig Rank :


গিগ ডিস্ক্রিপশন আপনার গিগ র‍্যাংক করার আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এই অংশটি শুধুমাত্র SEO এর সাথে সম্পর্কিত। গিগ ডিস্ক্রিপশন এমনভাবে লিখুন যাতে আপনার কীওয়ার্ড আরও বেশিবার ব্যবহার করা যায়। কিন্তু এটি এমনভাবে ব্যবহার করুন যাতে ডিস্ক্রিপশন পড়ে বিরক্তিকর মনে না হয়। এবং কিছু এক্সট্রা সার্ভিস দিন যা অন্যদের থেকে আলাদা। এই জন্য, আপনি অন্যান্য  র‍্যাংক করা  গিগ থেকে ধারণা নিতে হবে।

How to Send Fiverr Buyer Request | ফাইভার বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠানোর নিয়ম - পড়ুন এখানে

6. গিগ মার্কেটিং for Fiverr Gig Rank :


এই বিভাগটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনি আপনার গিগ ফেসবুক, টুইটার, লিংকড-ইন মার্কেটিং করতে পারেন। আপনি যদি মার্কেটিং এর মাধ্যমে আপনার গিগ এ কিছু ট্রাফিক আনতে পারেন তাহলে আপনার গিগ র‍্যাংক হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। আপনি বিভিন্ন অনলাইন ফোরামে আপনার সেবা সম্পর্কে গিগ উপস্থাপন করতে পারেন। এটি আপনাকে অনেক সাহায্য করবে।


পরিশেষে বলতে চাই-


* কোন ধরনের গিগ কপি করবেন না। সবকিছু নিজের দ্বারা করুন। আপনি অন্যদের কাছ থেকে ধারণা নিতে পারেন কিন্তু আপনি কিছু কপি করতে পারবেন না। অনেকেই এই ভুল করে যার ফলে তাদের ভবিষ্যৎ আইডি নষ্ট হয়ে যায়। এবং বড় প্রশ্ন হল, আপনি কি চোর যে অন্য মানুষের জিনিস চুরি করবেন? এটা করা যাবে না। আমি অনেককে এই কাজ করতে দেখেছি, এটা ভুল। আশা করি বুঝতে পেরেছেন।.


* উপরের এই কাজগুলো নিয়মিত করুন। 4,5 দিন পর, গিগ পুনরায় সাজান, সবসময় আগের চেয়ে ভালো কিছু করার চেষ্টা করুন। গিগের সময়।  গিগগুলি একটি পণ্যের মতো।  আপনি যত বেশি সময় দেবেন, তত ভালো  আপনি তখন নিজের ভুল বুঝতে পারবেন।


ধৈর্য ধরুন। হতাশ হবেন না। কাজকে ভালোবাসুন, টাকাকে নয়। আপনাকে এমনভাবে কাজ করতে হবে যা আপনাকে অন্যদের থেকে আলাদা করে। চেষ্টা করতে থাকেন, সাফল্য একদিন আসবেই। যেহেতু আমিও এগুলো ফলো করে আমার প্রথম সাফল্য পেয়েছি, তাই আপনিও পাবেন ।  আপনাকে পেতেই হবে । কখনো হাল ছাড়বেন না। 

Post a Comment

Previous Post Next Post