How to Send Fiverr Buyer Request | ফাইভার বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠানোর নিয়ম

 


আজ আমরা জানবো কিভাবে ফাইভার বায়ার রিকুয়েস্ট  পাঠাতে হয়। অনেকেই হয়তো জানেন না কিভাবে একটি সুন্দর, আকর্ষণীয় বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠাতে হয়। আজ আমি আপনাদের সাথে কিছু পয়েন্ট শেয়ার করবো যার মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন কিভাবে একটি ফাইভার বায়ার রিকোয়েস্ট পাঠাতে হয় । আসুন জেনে নেই বায়ার রিকুয়েস্ট টি আসলে কি জিনিস।


বায়ার রিকুয়েস্ট কি?


বায়ার রিকুয়েস্ট হল যখন আপনি ক্রেতার চাকরিতে আগ্রহ প্রকাশ করে চাকরিতে পোস্ট করেন  সেই কাজের জন্য, আপনার আবেদনকে মূলত ক্রেতা অনুরোধ বলা হয়। সোজা কথায়, যখন কেউ চাকরির জন্য কারো কাছে রিকুয়েষ্ট করে বা আবেদন করে, তখন তাকে বায়ার রিকোয়েস্ট বলা হয়। ফাইভার বায়ার রিকুয়েস্ট হচ্ছে ফাইভারের মাধ্যেম কোনো বায়ারকে রিকুয়েষ্ট পাঠানো বুঝায়।


একদিনে কয়টি বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠানো সম্ভব  ?


FIVERR একটি প্ল্যাটফর্ম যেখানে আপনি গিগ পাঠানোর পাশাপাশি ক্রেতার অনুরোধ পাঠাতে পারেন। ১০ জনকে এক দিনে FIVERRবায়ার রিকুয়েস্ট পাঠানো যেতে পারে। এটি ১০ জনের বেশি পাঠানো সম্ভব নয়।  আপনার কাজের ক্যাটাগরির উপর বেস করে আপনার কাছে বায়ার রিকুয়েস্ট আসবে এবং আপনি ২৪ ঘন্টায় ১০ টি বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠাতে পারবেন।


নিচে কিছু বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে যা আপনাকে বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠানোর কাজে সাহায্য করবে। আপনি যদি এই বিষয় গুলোর উপর গুরুত্ব দিতে পারেন তাহলে আপনি একটি প্রোফেশনাল মানের বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠাতে পারবেন -



1. Find Your Job : 

 

প্রথমে আপনাকে দেখতে হবে যে বায়ার রিকুয়েস্ট এর মধ্যে যে কাজটি আপনি পারেন সেটি ভালো করে পড়া। আপনি যদি কাজটি সম্পকে জানেন তবেই আপনি সেই কাজ এর জন্য আবেদন করবেন। আপনি কাজ সম্পকে কিছু জানেন না সেই সব বায়ার রিকুয়েস্ট আপনি হাত ই দিবেন নাহ । চেষ্টা করবেন আপনি যে কাজ টি পারেন এবং সিউর সেই কাজটি করতে পারবেন এমন মনে হলে আপনি বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠাবেন ।

 

2. Select Your Related GIG :  

 

বায়ার রিকুয়েস্ট  লেখার আগেই অবশ্যই ওই কাজ এর রিলেটেড একটি গিগ আপনার আছে কিনা সেটি খেয়াল রাখতে হবে ।।  মনে করেন একটি কাজ আপনি পারেন,  আপনি তাকে অফার পাঠাবেন,  কিন্তু দেখলেন যে ওই রিলেটেড কাজের কোন গিগ আপনার আপলোড করা নাই তাহলে আপনি এপ্লাই করতে পারলেও কাজটি পাওয়ার সম্ভবনা আপনার খুবই কম। তাই এই বিষয়টি অবশ্যই মাথায় রাখবেন। 


অনেকেই এই ভুলের জন্য অনেক বায়ার রিকুয়েস্ট  পাঠানোর পরেও কোন রেসপন্স পায় নাহ। তাই বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠানোর ক্ষেত্রে আপনাকে এই বিষয় এর উপর বেশি নজর দিতে হবে।

 

৩। Select Orginal Order Request :

 

এইটি একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ জিনিস।।  আপনি কিভাবে বুঝবেন যে কোনো কাজটিতে আপনাকে এপ্লাই করা দরকার। কারণ আপনি দিনে ১০টির বেশি অফার পাঠাতে পারবেন নাহ। তাই আপনাকে এই বিষয়ে বেশি মনোযোগী হতে হবে। যে কাজগুলোতে কাজের বিস্তারিত বলা থাকবে,  কাজের পুরো প্লান বলে দেয়া থাকবে ,  আপনি সে কাজ গুলোতে বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠাতে পারেন,  কারণ এই কাজ গুলো পাওয়ার সম্ভবনা বেশি থাকে।


অনেকে না জেনে সব বায়ার রিকুয়েস্ট কাজে বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠাতে চায় বা অনেকে পাঠায় ফেলে এইটা করে যাবে নাহ । তাই বায়ার রিকুয়েস্ট এর বর্ননা ভালো করে পড়ুন , বায়ার এর সাইকোলজি বুজার ট্রাই করেন তারপর বায়ার রিকুয়েস্ট এপ্লাই করেন ।

 

৪। Write an Attractive Cover Letter :

 

This is the main part for this বায়ার রিকুয়েস্ট । কভার লেটারটি যতটা সম্ভব সুন্দর করার চেষ্টা করুন। কপি করা লেখা থেকে বিরত থাকুন।।  কভার লেটার এর শুরুতে নিজে পরিচয় না দিয়ে খুব সংক্ষিপ্ত ভাবে বায়ার এর কাছে নিজের কাজের প্লান উপস্থাপন করুন। বায়ার কি চাচ্ছে সে সম্পকে আপনার কি প্লান সেটি সম্পকে বলুন।  বায়ার যদি কাজের সিম্পল চায় তাহলে দিন,  না চাইলে দিবেন নাহ।। কাজের বাহিরে অতিরিক্ত কোনো কথা লিখবে নাহ বায়ার রিকুয়েস্ট-এ।  আপনি কি কাজ পারেন,  কয়টা প্রজেক্ট করেছেন,  কয়টা রিভিউ আছে এগুলো তুলে ধরবেন নাহ। নিজেকে খুব সিম্পল ভাবে তুলে ধরুন। 

 

অনেকই যে ভুলটি করে সেটি হলো বিশাল বড় একটা কভার লেটার লিখে বায়ার রিকুয়েস্ট-এর জন্য,  আপনি এই বোকামি টা করবেন নাহ। আমি আবারও বলছি খুব সুন্দর ভাবে সংক্ষিপ্ত ভাবে নিজেকে উপস্থাপন করুন।  এবং বায়ারের কাজটি কিভাবে আপনি করতে চান সে সম্পকে তাকে আপনার প্লান বলুন। পরিশেষে আপনার পরিচয় দিয়ে বায়ার রিকুয়েস্ট টি পাঠিয়ে দিন। 

 

 

5. Select Price : 

 

বায়ারের কত বাজেটে  কাজটি শেষ করতে চায় সেটি লক্ষ্য করুন।  তারপর আপনার কাজটি শেষ করতে কত খরচ হবে সেটিই দিয়েই এপ্লাই করুন। অনেক বায়ার এমনি একটি প্রাইস দিয়ে বায়ার রিকুয়েস্ট দেয় , তাই এই বিষয়ে সাবধান । যে কাজ এর যে দাম হবে সেটি দিয়েই বায়ার রিকুয়েস্ট এপ্লাই করুন । কাজের চেয়ে বেশি দাম বলবেন নাহ আবার কম দাম দিলে বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠাবেন নাহ ।

 

Important:- 

 

* যে কাজটি আপনি পারবেন না সে কাজটি কোনো ভাবে এপ্লাই করবেন নাহ।  

 

* সব সময় সত্য থাকবেন। 

 

* ধৈয্য ধরুণ এবং এবং বায়ার রিকুয়েস্ট পাঠাতে  থাকুন।

 

পরিশেষে বলতে চাই , 

 

বায়ার রিকুয়েস্ট এর মাধ্যেমে আপনি আপনাকে উপস্থাপন করছেন । আপনাকে কোনো বায়ার এমনি এমনি কাজ দিবে নাহ, আপনাকে এমন কিছু করতে হবে বা উপস্থাপন করতে হবে যা সবাই করে নাহ , সবার থেকে আলাদা ।


উপরের এই বিষয় গুলো মাথায় রেখে যদি আপনি বায়ার রিকুয়েস্ট এর জন্য এপ্লাই করেন তাহলে আশা করছি আপনি একটি ভালো ফল পাবেন ।

Post a Comment

Previous Post Next Post